ফেলে আসা দিনের টেলিফোন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অনেকটা কৌতুহলের বশেই টেলিফোন রিসিভারটা (Telephone receiver) তুলে কানে ধরলাম! সেই অতি পরিচিত আওয়াজ, কুরররউউউ……! কানে এলো। কয়েক দশক পরে শুনলাম সেই অতি পরিচিত dial tone. আজকের প্রজন্ম হয়তো এই dial tone এর সাথে পরিচিত নন। তাদের জন্য একটু সহজ করে বোঝাবার চেষ্টা করছি। ডায়াল টোন হল সেই সংকেত বা শব্দ যা একজন ব্যক্তি একটি ল্যান্ডলাইন টেলিফোনে রিসিভারটা তুলে কানে ধরলে শুনতে পায়। এটি ফোন নম্বর ডায়াল করার আগে পর্যন্ত শোনা যায়। যখন নম্বরের বোতাম টেপা শুরু হয় বা ডায়েল ঘোরানো শুরু হয় এই ডায়াল টোন বন্ধ হয়ে যায়। এই ডায়াল টোনের প্রধান কি কাজ আমার জানা নেই, তবে নিজের অভিজ্ঞতা থেকে যেটা বুঝেছি যে যদি এই ডায়াল টোন শোনা যায় ফোন কানে তুলেই তবে ফোন ঠিক আছে। আর যদি ডায়াল টোন শোনা না যায়, তবে ফোন ঠিক নেই এবং সামনে এক ভোগান্তি অপেক্ষা করছে।

বন্ধুর ঘরে গিয়ে দেখি ওর টেবিলে নতুন একটা Land line telephone receiver. Airtel Xtream ও Jio fiber এর দৌলতে এখন অনেকের ঘরে Land line telephone receiver এর হিড়িক লেগেছে আজকাল। আমার নিজের ঘরেই Airtel Xtream আছে, কিন্তু আমি ওই ৫০০ টাকা খরচা করে আর telephone receiver কিনিনি। দুই কোম্পানিই ফ্রী land phone calling দিচ্ছে broadband connection এর সাথে, কিন্তু telephone receiver দিচ্ছে না। আজ সকালে ঘোটে গেলো সেই nostalgicঘটনাটি। কয়েক দশক পরে শুনলাম সেই অতি পরিচিত dial tone. প্রথম শ্রবণেই আমার হাতের ও কানের লোম হয়তো খাঁড়া হয়ে গিয়েছিলো। কৌতুহলের বশেই নিজের মোবাইল ফোনে ফোন করলাম। সেই অতি পরিচিত ৯০ দশকের সময় কে অনুভব (feel) করলাম এই ২০২১এ। আবার মোবাইল ফোন থেকে call back করলাম Land line telephone এ। বেশ মজা লাগলো কুড়কুড় রিং টোন শুনে। ডান হাতে Land line telephone এর রিসিভার আর বাম হাতে মোবাইল ফোন তুলে নিয়ে ২/৪ বার হ্যালো বললাম। বাচ্চা ছেলের মত নিজে নিজে একটু হাসলাম। সেই পুরনো দিনের feel.

এবার মূল কথায় আসা যাক। যে জন্য লিখতে বসেছি আজ। ঘরে ফিরে আপিসের কাজ করতে করেত হঠাৎ একটা কথা মথায় এলো। আচ্ছা, আগে যখন Land line telephone ছিলো তখন ফোন এলেই মনে একটা কৌতুহল জন্ম নিতো। কে ফোন করেছে? কারন সেই সময় ৯০% মানুষের বাড়িতে Basic telephone receiver থাকতো, যাতে caller id বা কে ফোন করছে দেখার কোন ব্যবস্থা থাকতো না। একবার ভেবে দেখুন, প্রতি বার একটা ফোন আসছে, আর প্রতি বার মনে একটা কৌতুহল জন্ম নিচ্ছে। কে ফোন করেছে? এই ২০২১ এ আমি এই অনুভুতি কে খুব miss করি। TrueCaller এর যুগে আজ অপরিচিত নম্বরও আজ পরিচিত। সেই অজানা না-দেখা feel টা আজ আর নেই, সব কিছু কেমন যেন খোলামেলা। একটু পর্দা একটু আড়াল, একটু অজানা একটু অচেনা, আমার তোঁ বেশ লাগে। জীবনে একটু আলোআঁধারি থাকার প্রয়োজনও আছে। গায়কের কথায়, “সব পেলে নষ্ট জীবন“।

আমাদের ‘প্রথম টেলিফোন’ নিয়ে আগে একটু লিখেছিলাম। লিঙ্ক দিয়ে রাখলাম, ইচ্ছে হলে পড়ে দেখবেন।

সঞ্জয় হুমানিয়া
১১ অগাস্ট ২০২১, বেঙ্গালুরু।

★ আমার লেখায় অজস্র বানান ভুল থেকে যায়, পাঠকের চোখে পড়লে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন ★