পাড্ডূ / Paddu কর্ণাটক সহ দক্ষিণ ভারতের একটি জনপ্রিয় সকালের জলখাবার বা সন্ধার স্নাক্স / snack. দক্ষিণ ভারতের অন্যান্য রাজ্যে পোঙ্গানালু / ponganalu এবং পানিয়রাম / paniyaram নামেও পরিচিত। প্রধানত চাল, ডাল এবং মেথি এক রাত আগে জলে ভিজিয়ে রাখতে হয়। এর পর জল কমিয়ে মিক্সিতে পেস্ট করে নিয়ে চার ঘণ্টা ঢেকে রাখতে হয়। যখন পাড্ডূ তৈরি করবেন তখন পেস্টের এর মধ্যে পেয়াজ কুচি, কাঁচা লঙ্কা কুচি ও অন্যান্য সব্জি কুচি, লবন দিয়ে ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হয়। তারপর পাড্ডূ স্ট্যান্ডে ব্রাশ দিয়ে তেল মাখিয়ে আল্প অল্প করে পেস্ট একটা হাতা দিয়ে দিতে হয়। এবার একটা ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিয়ে তিন / চার মিনিটের রাখতে হয়। তারপর ঢাকনা খুলে পাড্ডূ গুলোকে উল্টে দিতে হয়। তারপর আরও দুমিনিট রাখতে হবে। দুমিনিট পরে গরম গরম পাড্ডূ আপনার সামনে, এবার চাটনি সহযোগে গরম গরম পরিবেশন করুন। চাটনি তৈরিও খুব সহজ। ধনেপাতা এক আঁটি, তিনটে কাঁচা লঙ্কা, চার কোয়া রসুন, ৮ টা ভেজানো কাজু, হাফ চামচ লবন দিয়ে মিক্সিতে পেস্ট করে নিলেই চাটনি তৈরি।

এই পাড্ডূর খোঁজে আমি রণে, বনে, জলে, জঙ্গলে মাঝে মাঝে ঘুরে বেড়াই। কবির ভাষায় “যেখানে দেখিবে পাড্ডূ, খাইয়া দেখ তাই, পাইলেও পাইতে পার অমূল্য স্বাদ”। এরকমই একদিন পথ চলতে চলতে চোখে পড়লো পাড্ডূর stall. সাদামাটা রাস্তার পাসে ঠেলা গাড়িতে পাড্ডূর দোকান। এরা পাড্ডূ বানায় কাঠের আগুনে, হয়তো সেই কারনেই এদের স্বাদ অন্যদের থেকে একটু আলাদা। কথা বলে জানলাম এরা অন্ধ্রপ্রদেশর মানুষ, বেঙ্গালুরুতে বহু বছর ধরে আছেন। এই পাড্ডূর দোকানও অনেক বছরের। আমারা তিনজনে পাড্ডূ খেলাম, ভালো লাগলো। সত্যি বলতে খুব ভালো লাগলো। এর পর থেকেই শুরু হল আমার যাওয়া আসা। সপ্তাহে ২/৩ বার, বিকালে কোন দিন একা আবার কোন দিন দলবেঁধে। এখানে এক প্লেটে ৬টি পাড্ডূ দেয় মাত্র ৩০ টাকায়। পাড্ডূ যথেষ্ট সুস্বাদু । এই প্লেটই আপনার বিকালের বা সন্ধার খুচরো খিদে মেটানোর জন্য যথেষ্ট। বেঙ্গালুরুর বাঙ্গালীরা try করে দেখতে পারেন। হয়তো ভালো লাগতেও পারে আপনাদের।

Play Video
Facebook Comments Box